নতুন এন্ড্রয়েড ফোনে যে এপসগুলো ইউজ করতে হয়


নতুন এন্ড্রয়েড ফোনে যে এপসগুলো ইন্সটল করবেন

এপস হচ্ছে এন্ড্রয়েড ফোন এর প্রাণ। প্লে স্টোর এ হাজার হাজার এপ রয়েছে। আপনি ফোন কেনার পর প্লেস্টোর থেকে কোন এপসগুলো ইন্সটল করবেন তা নিয়ে চিন্তায় পড়ে যান। এই টিউনটিতে জানাব নতুন এন্ড্রয়েড মোবাইলে কোন এপসগুলো ইউজ করতে হয়।

এন্ড্রয়েড ফোনে যে এপসগুলো ইউজ করতে হয়


সিকিউরিটি-

১। AVG Antivirus
আপনার মোবাইল এর সুরক্ষার জন্য দরকার একটি এন্টিভাইরাস। আপনি এভিজি এন্টিভাইরাস ইউজ করে আপনার ফোনটির সুরক্ষা নিশ্চিত করতে পারেন।

২। Applock
আপনার ফোন এর এপসগুলো লক করে রাখার জন্য এই সফটওয়ারটি ইউজ করতে পারেন। এটি খুবই ভাল একটি সফটওয়্যার। আমি নিজেও আমার মোবাইলে এটি ইউজ করি।

৩। Gallery Vault
আপনার গুরুত্বপূর্ণ যে কোন ফাইল, অডিও, ভিডিও, ছবি এগুলো হাইড করে রাখার জন্য খুবই ভাল একটি এপ। এর মধ্যে আরও বেশ কিছু ফিচার রয়েছে। ইন্সটল করে ওপেন করলেই বুঝতে পারবেন।

কমিউনিকেশন-

১।Messenger
আপনার বন্ধু-বান্ধব, আত্বীয়-স্বজনের সাথে কমিউনিকেশন করার জন্য বেস্ট একটি এপ এটি। মেসেঞ্জার এপটি সারা বিশ্বেই খুব জনপ্রিয়। এর মাধ্যমে আপনি চ্যাটিং, অডিও কল, ভিডিও কল, ফাইল শেয়ারিং সবকিছুই করতে পারবেন।

২। WhatsApp
হোয়াটসএপ আরও একটি জনপ্রিয় কমিনিকেশন এপ। এর কাজও মেসেঞ্জার এর মত। এর মাধ্যমেও আপনি চ্যাটিং, অডিও কল, ভিডিও কল, ফাইল শেয়ারিং করতে পারবেন।

আমার মতে এই ২টা এপস থাকলেই এনাফ। এর বাইরেও অনেকে  IMO, Viber এগুলো ইউজ করে থাকে।

ইন্টারনেট ব্রাউজারস-

১। Google Chrome
গুগল ক্রোম বেশ জনপ্রিয় একটি ইন্টারনেট ব্রাউজার। এন্ড্রয়েড ফোন এর সাথে এটি বাই ডিফল্ট দেয়া থাকে। গুগল ক্রোম ব্যবহার করলে অন্য কোন ব্রাউজার ব্যবহার করা লাগেনা।

২। CM Browser
গুগল ক্রোম ব্যবহার করলে আসলে অন্য কোন ব্রাউজার ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়েনা। তারপরও বিভিন্ন কাজে আমাদের এক এর অধিক ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করতে হতে পারে। সেই হিসেবে ক্রোম এর পর আমার পছন্দ সিএম ব্রাউজার। এটি খুবই চমৎকার একটি ব্রাউজার এবং সাইজেও অনেক ছোট। এটি ইউজ করে দেখতে পারেন।

এই ২টার বাইরেও চাইলে অপেরা মিনি, ফায়ারফক্স এগুলো ব্যবহার করে দেখতে পারেন। তবে আমার দেখা সবচেয়ে বাজে এবং বিরক্তিকর ব্রাউজার হচ্ছে ইউসি ব্রাউজার।

টুলস-

১। CCleaner
আপনার এন্ড্রয়েড ফোনটি ক্লিন করার জন্য এবং স্পীড আপ করার জন্য সিক্লিনার একটি কার্যকরী এপ।

২। DiskDigger
ডিস্কডিগার হচ্ছে এন্ড্রয়েড মোবাইল এর ডাটা রিকভারী সফটওয়্যার। আপনার ডিলিট হয়ে যাওয়া ছবিগুলো ফিরে পাওয়ার জন্য এটি ব্যবহার করতে পারেন।

৩। WPS Office
স্মার্টফোন এ ব্যবহার করার জন্য সবচেয়ে ভাল অফিসস্যুট এপ্লিকেশন। এর মাধ্যমে আপনি ওয়ার্ড ফাইল, এক্সেল ফাইল, পিডিএফ ফাইল পড়তে পারবেন।

৪। Shareit
এক মোবাইল থেকে অন্য মোবাইলে অথবা মোবাইল থেকে ল্যাপটপ এ ফাইল ট্রান্সফার করার জন্য সবচেয়ে ভাল এপ্লিকেশন।

এন্টারটেইনমেন্ট-

১। MX Player
মোবাইলে ভিডিও দেখার জন্য ভাল একটি সফটওয়্যার। এর সাহায্যে আপনি মোটামুটি সব ফরম্যাট এর ভিডিও দেখতে পারবেন। এর ফিচারগুলো খুব সুন্দর। ব্যাবহার করলেই বুঝতে পারবেন।

২। Play Music
প্লে-মিউজিক হচ্ছে ফোনে মিউজিক শোনার এপ্লিকেশন। এখানে আপনার মিউজিকগুলো খুব সুন্দরভাবে অর্গানাইজ করে রাখতে পারবেন, প্লেলিস্ট আকারে রাখতে পারবেন।

ফটো এডিটিং-

১। Picsart
ফটো এডিটিং এর জন্য সেরা একটি সফটওয়্যার। এটার মধ্যে ফটো এডিটিং এর জন্য মোটামুটি সব ধরণের ফিচার রয়েছে।

২। Pixlr
এটিও খুব জনপ্রিয় ফটো এডিটিং এপ। এটি পিকসাআর্ট এর চেয়ে সাইজে অনেক ছোট। তাই আপনি চাইলে পিকসআর্ট এর পরিবর্তে পিক্সলার ব্যবহার করতে পারেন।

এন্ড্রয়েড ফোনে ব্যবহার করার মত এপসগুলো জানিয়ে দিলাম


এছাড়া এই পোস্টগুলো পড়ে দেখতে পারেন-


পোস্টটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানাতে চাইলে নিচে কমেন্ট বক্স এ কমেন্ট করুন। পোস্টটি ভাল লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। আমাদের পরবর্তী পোস্টগুলো আপনার ফেসবুকে নিউজফীডে পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ লাইক দিয়ে রাখুন। আর মেগাটিউন বিডির সাথেই থাকুন।
নতুন এন্ড্রয়েড ফোনে যে এপসগুলো ইউজ করতে হয় নতুন এন্ড্রয়েড ফোনে যে এপসগুলো ইউজ করতে হয় Reviewed by Admin on 3:04 PM Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.