স্মার্টফোন সিকিউর করার ৯টি উপায়!

 

আপনার স্মার্টফোনটি সিকিউরড করে ফেলুন নিমিষেই

বর্তমানে স্মার্টফোন ব্যবহার করেনা এমন লোক মনে হয় কমই আছে। যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করি তারা মোবাইলে ডাটা অন করে ইন্টারনেট ইউজ করি। কিন্তু এই ইন্টারনেট জগতেই কিছু অসৎ লোক সুযোগের অপেক্ষায় থাকে কিভাবে আপনার ক্ষতি অরা যায়। তাই, আজকে দেখাব কিভাবে আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ফোনটি সিকিউরড রাখতে পারেন।

স্মার্টফোন সিকিউর করার ৯টি উপায়


কিভাবে স্মার্টফোন সিকিউরড করা যায়

১। অনলাইন ব্যাংকিং অথবা শপিং এর পর লগ আউট করা
বর্তমানে ইন্টারনেট এর যুগে আমরা অনেক কিছুই এখন অনলাইনে করে থাকি। এর মাঝে অনলাইন ব্যাংকিং, অনলাইন শপিং ও অন্তরভূক্ত। আপনার ডেস্কটপে যেভাবে সিকিউরডলি চালান ঠিক সেভাবেই ফোনেও সিকিউরডিলি এসব চালাতে হবে। ব্যাংকিং/শপিং এর পর লগ আউট করতে ভুলবেন না। এতে করে হ্যাকাররা সহজেই আপনার তথ্যগুলো পেয়ে যাবে না।

২। শুধুমাত্র পাসওয়ার্ড আছে এমন পাবলিক ওয়াইফাই ব্যবহার করুন
আমরা এখন পাবলিক প্লেস এ ওয়াইফাই ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছি। পাবলিক ওয়াইফাই ২ ধরণের হয়। একটাতে কোন সিকিউরিটি থাকে না, ওপেন করা থাকে। আরেকটা সিকিউরিটি দেয়া থাকে অর্থাৎ পাসওয়ার্ড দেয়া থাকে কিন্তু সবাই পাসওয়ার্ডটা জানে। তো পাসওয়ার্ড আছে এ রকম পাবলিক ওয়াইফাই ব্যবহার করুন। কারণ ওপেন ওয়াইফাই ইউজ করলে হ্যাকাররা চাইলেই আপনার যে কোন এক্টিভিটিজ দেখতে পাবে এমনিক পাসওয়ার্ড সহ।

৩। লকস্ক্রীণে পাসওয়ার্ড সেট করুন
একটি শক্ত পাসওয়ার্ড আপনার মোবাইলটিকে আনঅথোরাইজড এক্সেস থেকে বিরত রাখে। আপনার মোবাইল ফোনে পাসওয়ার্ড না থাকলে যে কেউ চাইলে আপনার এন্ড্রয়েড ফোন এ স্পাইওয়্যার ইন্সটল করে দিতে পারে। আর পাসওয়ার্ড ইউজ করার সময় সহজ ৪-৫ ক্যারেক্টার এর পাসওয়ার্ড ইউজ করবেন না। ৮-৯ ক্যারেক্টার এর শক্ত পাসওয়ার্ড ইউজ করবেন।

৪। নতুন এপস ইন্সটল করার সময় পারমিশন চেক করুন

নতুন এপস ইন্সটল করার সময় দেখবেন ওরা আপনার কাছে বেশ কয়েকটি পারমিশন চাচ্ছে, দেখে শুনে জেনে তারপর পারমিশন দিবেন। নয়তো তারা আপনার পারসোনাল ইনফো কালেক্ট করতে পারে।

৫। ফোনে একটি সিকিউরিটি এপ ইউজ করুন
আপনি বাইরে থেকে দেখেই বলতে পারবেন না কোন এপসটাতে ম্যালওয়্যার আছে। এক্ষেত্রে সিকিউরিটি এপস আপনাকে সাহায্য করবে। আপনার স্মার্টফোন এ যদি কোন ভাইরাস অথবা ম্যালওয়্যার ইন্সটল হয় তাহলে সিকিউরিটি এপস টি সেটি রিমুভ করে দিবে।

৬। আপনার ডাউনলোড রিভিউ করুন
আপনি কি ডাউনলোড করছেন তা রিভিউ করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। রিভিউ করলে আনওয়ান্টেড ফাইলগুলো আপনার চোখে পড়বে। তাহলে সহজেই আপনি সেগুলো রিমুভ করতে পারবেন।

৭। এপ ডাউনলোড ফ্রম আননোন সোর্স ডিজেবল করে রাখুন
এটি ডিজেবল করে রাখলে আপনার অজান্তে কোন ইন্সিকিউরড এপ আপনার ফোনে ইন্সটল হবে না।

৮। এপস এডমিনিস্ট্রেটর একসেস গ্রান্ট করবেন না

এটি গ্র্যান্ট করে রাখলে আপনার মোবাইলে র‍্যানসামওয়্যার ইন্সটল হয়ে যেতে পারে। র‍্যানসমওয়্যার খুব শক্তিশালী ভাইরাস, যা আপনার ফোন লক করে দিতে পারে, চাইলে রিমোটলি আপনার ডাটা মুছে দিতে পারে।

৯। এপ আপডেটস
আপনার এপসগুলো সবসময় আপডেটেড রাখার চেষ্টা করবেন। এপসগুলোর আপডেটেড ভার্সনগুলোতে বাগ ফিক্স করা থাকে।

এগুলোই ছিল স্মার্টফোন সিকিউরড রাখার টিপস।


আরও পড়ুন-

আশা করি পোস্টটি আপনাদের ভাল লাগবে। বন্ধুদের সতর্ক করতে পোস্টটি শেয়ার করুন।

Post a Comment

0 Comments